Top Photo Editing Apps for Android in Bangla [2023]

Bongsrnews

Top Photo Editing Apps: আপনি যদি ফটো এডিটিং করতে ভালোবাসেন বা ফটো এডিটিং এর বিষয়ে যদি আপনার বিশেষ কিছু জ্ঞান না থাকে তাহলে বিস্তারিত কিছু তথ্য আমি আলোচনা করব আপনাদের সাথে যেখানে আপনি আপনার ফটো পেয়ে খুবই সহজে এডিট করতে পারবেন আর আপনার ফটো এডিটিং করা যদি একটা প্যাশন হয়ে থাকে তাহলে আমি বিশেষ কিছু সফটওয়্যার এর কথা আলোচনা করব যেগুলি আপনি মোবাইল ফোনে ব্যবহার করতে পারবেন এবং একটি ফটোকে খুব সহজে এডিটিং করতে পারবেন। ফটো এডিটিং অনেকে মনে করে থাকেন এটি একটি খুবই কঠিন কাজ তবে কিছু সফটওয়্যার রয়েছে যেগুলি আপনি অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ইউজ করে ফটোকে এডিট করতে পারবেন। এছাড়াও যদি আপনি একজন ফটোগ্রাফি হয়ে থাকেন তাহলে এই সফটওয়্যার গুলি আপনারা ব্যবহার করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় জেনে নিন কি সফটওয়্যার। 

PicksArt:-

প্রথমত আসা যাক সবথেকে জনপ্রিয় ফটো এডিটিং সফটওয়্যার যার নাম Picks Art 🎨
 বর্তমানে সব থেকে গুগল প্লে স্টোরের রেটিং এবং ডাউনলোড এতটাই বেশি যে এই এই পিকচারটার ইউজার সংখ্যা অনেকটাই। পিকচার সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি আপনার ফটো কি খুবই সহজে এডিটিং করতে পারবেন যেন ডিএসএলআর এর মতো যদি আপনার মোবাইল ফোনে ক্যামেরা খুব একটা ভালো নয় তাহলে চিন্তার কোন কারণ নেই এই পিকচার সফটওয়্যার আপনি ডাউনলোড করুন আপনার মোবাইল ফোনে এবং যেকোনো ফটো কে এডিট করুন।

Snapseed:-

দ্বিতীয় আসা যাক Snap seed App টি Google Play স্টোরের আরেকটি জনপ্রিয় সফটওয়্যার আপনি আপনার মোবাইল ফোনে সফটওয়্যার ডাউনলোড করে ভালো ফটো এডিট করতে পারবেন আপনি যদি চান আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড কে বিশেষ আকর্ষণীয় ভাবে পরিবর্তন করতে তাহলে স্ন্যাপশীট আপনার জন্য খুবই একটি ভাল সফটওয়্যার হয়ে দাঁড়াবে এছাড়াও এখানে ফ্রিতে আপনারা হিলিং করতে পারবেন। অন্যান্য সফটওয়্যার এ যদি আপনি এই অপশন নিতে চান তাহলে আপনাকে প্রিমিয়াম ভার্সন ডাউনলোড করতে হবে যেখানে আপনার জন্য অনেক টাকা পে করতে হবে। কিন্তু এই সফটওয়্যারে আপনি এই ফিচার্স গুলি সম্পূর্ণ ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন।

Lightroom Photo & Video Editor (LR):-

এরপর আসা যাক সফটওয়্যার এ্যালার সফটওয়্যার এর নাম অনেকে শুনে থাকবেন যদি আপনি থাকেন এখন তাহলে আপনার খুবই শীঘ্রই গুগল প্লে স্টোর থেকে এল আর সফটওয়্যার টিকেট ডাউনলোড করে নেয়া উচিত কারণ এই সফটওয়্যারটি যদি আপনি ডাউনলোড করেন তাহলে আপনার অন্যান্য কোন ফটো এডিটিং সফটওয়্যার এর প্রয়োজন হবে না এটি মাধ্যমে আপনি ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে শুরু করে আপনার ফটো যদি কাল অথবা কালার চেঞ্জ করতে চান তাহলে এর আর সফটওয়্যার আপনার জন্য বেস্ট হয়ে দাঁড়াবেন। তো গুগল প্লে স্টোরে আপনি এই সফটওয়্যারগুলিকে ডাউনলোড করতে পারবেন ফটো এডিটিং এর জন্য।

PiXel Lab:-

পিক্সেল ল্যাব আরেকটি ফটো এডিটিং সফটওয়্যার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ কারণ যদি আপনি একজন প্রফেশনালি এডিটর হয়ে থাকে এমনকি  আপনি ইউটিউব দেখে থাকবেন যে ইউটিউবে থাম্বেলে ম্যাক্সিমাম ফটো Pixel Lab মাধ্যমে বানানো হয়। তাই Pixel Lab আপনার জন্য একটি professional সফটওয়্যার হয়ে দাঁড়াবে। যদি আপনি ইউটিউব ভিডিও ক্রিয়েট করে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার YouTube Thumbnail এবং Logo ইত্যাদি তৈরিতে Pixel Lab আপনার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সফটওয়্যার।

Inshort 

ইন্সট একটি গুরুত্বপূর্ণ ভিডিও এডিটিং এবং ফটো এডিটিং এর Software এই দুটোই feature আপনারা ইউজ করতে পারবেন। তবে যদি আপনি ইউটিউবে শট ভিডিও ক্রিয়েট করে থাকেন তাহলে ইনসাট এপ্লিকেশনটি আপনার জন্য সহজ হয়ে দাঁড়াবে Short ভিডিও তৈরি করার ক্ষেত্রে।
Share This Article
Leave a comment